ঢাকা শুক্রবার, ২২শে নভেম্বর ২০১৯, ৮ই অগ্রহায়ণ ১৪২৬

তিতাসের মৃত্যুর ঘটনায় যুগ্মসচিবসহ ৪ জনকে দায়ী করে প্রতিবেদন


প্রকাশিত:
২৯ আগস্ট ২০১৯ ১২:৪৬

আপডেট:
২৯ আগস্ট ২০১৯ ১৯:২৪

Published: 2019-08-29 12:46:15 BdST

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রাইম বাংলা: মাদারীপু‌রের কাঁঠালবা‌ড়ি ফে‌রিঘা‌টে ভিআইপির জন্য ‌তিন ঘণ্টা দেরি করায় ফেরিতেই কিশোরের মৃত্যুর ঘটনায় যুগ্মস‌চিব আবদুস সবুর মন্ডল, ফে‌রিঘা‌টের তিন কর্মকর্তা‌সহ চারজন‌কে দায়ী ক‌রে তদন্ত প্রতি‌বেদন দা‌খিল ক‌রে‌ছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি।‌

গতকাল নৌপ‌রিবহন স‌চিব মো. আবদুস সামা‌দের কা‌ছে তদন্ত প্র‌তি‌বেদন দা‌খিল করা হয়ে‌ছে।

বুধবার রা‌তে তদন্ত ক‌মি‌টির সদস্য ও নৌপ‌রিবহন মন্ত্রণাল‌য়ের উপসচিব এস এম শাহ্ হাবিবুর রহমান হাকিম গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান।

তি‌নি ব‌লেন, তদন্তে প্রমা‌ণিত হ‌য়ে‌ছে- ভিআইপির কারণেই ফেরিটি তিন ঘণ্টা দেরি ক‌রে। অ্যাম্বুলেন্স ফেরিতে থাকার সময় রোগীর মৃত্যু হয়। সেই ভিআইপি নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের কেউ ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন যুগ্মসচিব, তার নাম আব্দুস সবুর মন্ডল, তিনি এটুআই প্রকল্পে আছেন।

তিনি বলেন, আমরা ঘাটের লোকজন, স্থানীয় সাংবাদিক, আবদুস সবুর মন্ডল, মারা যাওয়া তিতাসের আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেছি। যুগ্মসচিব ম্যানেজারের সঙ্গে কখন, কতবার কথা বলেছেন, কী বলেছেন তা বিটিআরসি থেকে আমরা নিয়েছি। ‌নিহত তিতা‌সের আত্মীয়-স্বজন ৯৯৯-এ ফোন দেয়ার বিষয়টি আমরা বিবেচনায় নিয়েছি।

হা‌বিবুর রহমান হা‌কিম ব‌লেন, ফোনরেকর্ড ও সংশ্লিষ্টদের বক্তব্য অনুযায়ী আমরা দেখেছি যে ফেরিটি তিন ঘণ্টা বিলম্ব হয়েছে। আর এই বিলম্বের জন্য যুগ্মসচিব আব্দুস সবুর মন্ডল দায়ী।

‘ভ্রমণসূচি ছাড়া আব্দুস সবুর মন্ডলকে ভিআইপি সুবিধা দি‌তে ঘাটের ম্যানেজার আব্দুস সালাম, উচ্চমান সহকারী ফিরোজ আলম, প্রান্তিক সহকারী খোকন মিয়া ফে‌রি দেরি করিয়ে কর্তব্যে অবহেলা করেছে। এ জন্য তাদেরও দায়ী করা হয়েছে’ ব‌লেন উপস‌চিব।

তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশ তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘আমাদের একটা সার্কুলার আছে সেখানে বলা আছে লাশ, অ্যাম্বুলেন্স, মূল্যবান পচনশীল দ্রব্য- এগুলো অগ্রাধিকার দিয়ে পারাপার করতে হবে। এখানে এটা মানা হয়নি, এটা যথাযথভাবে মানার জন্য বলা হয়েছে।’

হা‌বিবুর রহমান আরও ব‌লেন, ‘ভিআইপি সুবিধা পাওয়ার ক্ষে‌ত্রে আগে থেকে ভ্রমণবিবরণী পাঠাতে হবে। কেউ যাতে ব্যক্তিগতভাবে ভিআইপি সুবিধা নিতে না পারে, সেই বিষয়ে বলা হয়েছে তদন্ত প্র‌তি‌বেদ‌নে।’

বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয় নড়াইলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র তিতাস ঘোষ। উন্নত চিকিৎসার জন্য অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় আনা হচ্ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটিুআই প্রকল্পে কর্মরত যুগ্মসচিব আব্দুস সবুর মন্ডলের গাড়ি না আসায় মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটে ফেরি ছাড়তে তিন ঘণ্টা বিলম্ব হয়। এ অবস্থায় ফেরিতে অ্যাম্বুলেন্সেই মৃত্যু হয় স্কুলছাত্র তিতাসের।

এরপর গত ২৯ জুলাই নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সঞ্জয় কুমার বণিককে প্রধান ক‌রে তিন সদ‌স্যের তদন্ত ক‌মি‌টি গঠন করা হয়। সদস্য হিসেবে ছি‌লেন- যুগ্মসচিব শাহনওয়াজ দিলরুবা খান এবং উপসচিব এস এম শাহ্ হাবিবুর রহমান হাকিম।



আপনার মতামত শেয়ার করুন:

Top